• Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1

রাজশাহী: শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮

অঞ্জন দত্তের জীবনের ‘অজানা’ অধ্যায় নিয়ে ‘অঞ্জনযাত্রা’

জীবনের বৈচিত্র্যপূর্ণ সব অভিজ্ঞতাকে যিনি গান, সিনেমা, গল্প ও কবিতার মধ্য দিয়ে তুলে ধরেছেন, তিনি হলেন জীবনমুখী বাংলা গানের জনপ্রিয় শিল্পী অঞ্জন দত্ত। দীর্ঘ এ জীবনে সম্মুখীন হয়েছেন বহু অভিজ্ঞতার। শৈশব, কৈশোর, তারুণ্য কিংবা যৌবনে নানা রূপে দেখা গেছে তাকে। সেই অঞ্জনের জীবনের নানা অজানা দিক নিয়েই প্রকাশ হতে যাচ্ছে বই ‘অঞ্জনযাত্রা’। লিখেছেন বাংলাদেশি লেখক সাজ্জাদ হুসাইন।

বাংলাদেশের প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘ছাপাখানার ভূত’ থেকে ‘অঞ্জনযাত্রা’ প্রকাশিত হবে। আর এর মধ্য দিয়েই প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হতে যাচ্ছে।

২৭ মার্চ সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমণ্ডির একটি কফি শপে এ বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হবে। এ বিষয়ে ৮ মার্চ, বৃহস্পতিবার রাতে সাজ্জাদ হুসাইন প্রিয়.কমকে বলেন, ‘যে অঞ্জনকে কেউ চিনতে, বুঝতে কিংবা জানতে পারেনি, আমি সেই অঞ্জনকেই খুঁজতে চেষ্টা করেছি।’

‘যদি কিছু করতে হয়, চ্যালেঞ্জ নিয়েই করতে হবে। তবে সেটা সবক্ষেত্রে নয়, মানে আমার সাথে আমাকে রিলেট করতে পারি, তেমন কিছু। বলতে চাচ্ছি, আমি যা করতে পছন্দ করি কিংবা আমি যেটা করতে চাই। অনেকদিন ধরেই চিন্তা করছিলাম কী করব, কী করব। হঠাৎ করেই গত বছরের নভেম্বরের ৬ তারিখে আমার মাথায় আসে অঞ্জন দত্তকে নিয়ে তো কোনো বই হয় নাই। এরপর পরিকল্পনা করেই সামনে এগিয়েছি। আমার ইচ্ছেটা অনেক বড় ছিল, যার কারণে এ ধরনের কাজ করার সাহস পেয়েছি।’

সাজ্জাদ জানান, বই লেখার বিষয়ে তিনি অঞ্জন দত্তের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, ধারণাটা শেয়ার করেন। মুঠোফোনে প্রথম দফার আলাপচারিতায় রাজি হয়ে যান অঞ্জন।

‘আমার যে চাওয়াটা ছিল, তার সাথে হয়তো অঞ্জন দত্তের চাওয়াটা মিলে গিয়েছে। সেই জায়গাটা থেকেই দাদা আমাকে আইডিয়াটা শেয়ার করার পরই, হ্যাঁ বলে দিয়েছেন। এরপর আমরা দার্জিলিংয়ে যাই, কিছুদিন সেখানে থাকি। সে সময় তিনি কিন্তু আর কলকাতার অঞ্জন দত্ত ছিলেন না! সবকিছু ঝেড়ে ফেলে তিনি আমাকে সময় দিয়েছেন। তার জীবনের পুরো গল্প বলেছেন। এ লেখার মধ্যে কোনো ব্যাঘাত ঘটেনি’, বলেন সাজ্জাদ।

দার্জিলিংয়ে অঞ্জন দত্তর সঙ্গে লেখক সাজ্জাদ হুসাইন। ছবি :লেখকের সৌজন্যে

বাংলাদেশি এই লেখক জানান, অঞ্জন দত্তের গল্প, সিনেমা, চিত্রনাট্য, গানের কথা, অভিনয় সবকিছুই তাকে অনুপ্রাণিত করে।

‘আরেকটা বিষয়, তার চিন্তার জায়গায় সবগুলো ক্ষেত্রেই কিন্তু সমান। এমন না যে, তিনি কোনোটাতে কম সময় দিয়েছেন, কোনোটাতে বেশি। হয়তো তার কাছে একেকটা একেকভাবে এসেছে। আরেকটা বিষয় তার জীবনের গল্পগুলো, মানে সে যা যা দেখেছে, সেগুলো সে তার গান, সিনেমা ও অভিনয়ের মাধ্যমে রিলেট করেছে’, বলেন সাজ্জাদ।

‘দার্জিলিংয়ে অঞ্জন দাদার শৈশব-কৈশোরের অনেকটা সময় কেটেছে। প্রথম সিগারেট, প্রথম মদ, প্রথম প্রেম-মানে এই বিষয়গুলো তার স্মৃতির সঙ্গে জড়িত। সেই বিষয়গুলোও এ বইতে এসেছে। তার জীবনের নানান অজানা বিষয়গুলো এ বইটাতে জানা যাবে। যে কথাগুলো কখনই তিনি বলেননি, সে কথাগুলোই তিনি এ বইটিতে বলেছেন’, যোগ করেন এই লেখক। 

‘এ বিষয়ে অঞ্জন দত্তের প্রতিক্রিয়া কী?’

জবাবে গুণী এই শিল্পীর বরাত দিয়ে সাজ্জাদ হুসাইন বলেন, ‘এই বইকে জীবনীও বলতে পারেন। সাজ্জাদের সঙ্গে কথা বলে মনে হলো যে, ও অন্যভাবে করবে, যে কথাগুলো কেউ জানে না। হয়তো ওর জানতে চাওয়া বা আমাকে বুঝতে চাওয়ার ইচ্ছাটা অন্য রকম। আমার ধারণা, ও কোনো চটক বা রগরগে কেচ্ছা খুঁজছে না এবং বড় মাপের দার্শনিক কোনো সত্যও খুঁজছে না। ও খুঁজছে একটা মোটামুটি স্বার্থক শিল্পীর যন্ত্রণা এবং সংগ্রামের অন্তরঙ্গ গল্প। সত্যি কথা না থাকলে আত্মকথা হয় না। ও খুঁজছে সেই অঞ্জনকে, যাকে কেউ বুঝতে পারেনি।’

জীবনের প্রথম বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ২৭ মার্চ ঢাকায় আসছেন অঞ্জন দত্ত।

লেখক জানান, বইয়ের দাম রাখা হয়েছে এক হাজার টাকা। শিল্পীর অটোগ্রাফ ও আলোকচিত্র থাকবে বইটিতে। তিনি আরও জানান, ফেসবুক পেজ বারবি বিডিতে (fb.com/barbeebd) ম্যাসেজ পাঠিয়ে বইটি সংগ্রহ করা যাবে।

AG