• Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1

রাজশাহী: শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮

কলকাতার বিপক্ষেই দুর্দান্ত সাকিব

পীযূষ চাওলার বলটা ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে বোল্ড হয়ে ভীষণ হতাশ সাকিব আল হাসান। তাঁর হতাশা ম্যাচটা শেষ করে না আসতে পেরে, ইনিংসটা আরেকটু লম্বা করতে না পেরে। তবে তার আগে যা করেছেন, তাতেই বাহবা পেতে পারেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ইডেন গার্ডেনে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ৫ উইকেটের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে তাঁর অলরাউন্ড পারফরম্যান্স।

কলকাতার দেওয়া ১৩৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ঋদ্ধিমান সাহা-শিখর ধাওয়ানের উদ্বোধনী জুটি যোগ করে ৩২ রান। ২৩ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে হঠাৎ চাপে হায়দরাবাদ। তখনই চতুর্থ উইকেট জুটিতে কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে সাকিবের ৫৯ রানের মহামূল্যবান জুটি। এই জুটি না দাঁড়ালে হায়দরাবাদের সামনে ১৩৮ রান হয়তো পাহাড় হয়ে দাঁড়াত।

২ চার ১ ছয়ে ২১ বলে ২৭ রান করে সাকিব যখন আউট হলেন, ততক্ষণ অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে ফেলেছে হায়দরাবাদ। সাকিবের কিছু পরে ৫০ রানে উইলিয়ামসন ফিরলেও কলকাতার মাটিতে কলকাতাকে প্রথমবারের মতো হারাতে খুব একটা সমস্যা হয়নি হায়দরাবাদের। ইউসুফ পাঠানের ৭ বলে ১৭ দারুণ সমাপ্তি টেনে দিয়েছে ম্যাচটির।

আজ ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই উজ্জ্বল সাকিবের দেখা মিলেছে। তবে বোলিংয়ে একটু বেশিই উজ্জ্বল ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। প্রথম ওভারেই কৃপণ বোলিং, দিয়েছেন মাত্র ৩ রান। সাকিবের ওভারের পরই ঝেঁপে নামল বৃষ্টি। বৃষ্টিবাধা পেরিয়ে ঘণ্টা খানেক পর আবারও খেলা শুরু হলে বোলিংয়ে ছন্দপতন হয়নি তাঁর। ৩ ওভারে ১৮ রানে ১ উইকেট নেওয়া সাকিব সবচেয়ে দুর্দান্ত নিজের শেষ ওভারে। ১৩তম ওভারে করা তাঁর দ্বিতীয় বলটা পাঞ্চ করেছিলেন ক্রিস লিন। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে এক হাতে দেখার মতো এক ক্যাচ নিলেন সাকিব। লিন ফিরলেন ফিফটি থেকে মাত্র ১ রান দূরে থেকে। ৪ ওভার শেষে সাকিবের বোলিং বিশ্লেষণী ৪ ওভারে ২১ রানে ২ উইকেট, মাত্র একটি বাউন্ডারি হয়েছে, ২৪ বলের ডট ১১টিই। এমন অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের পরও ম্যাচসেরার পুরস্কারটা হাতে ওঠেনি, একটু আফসোস হতেই পারে তাঁর। আফসোস হতে পারে কলকাতারও, সাত বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে এই সাকিবকে কিনা তারা ‘পর’ করে দিয়েছে!

AG