• Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1
  • Meni 1

রাজশাহী: শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮

পরিস্থিতি মোকাবেলায় চাই সম্মিলিত প্রস্তুতি

বাড়ছে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তাপমাত্রা
দেশের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে বেড়ে চলেছে রাত ও দিনের তাপমাত্রা। ইতোমধ্যে এই অঞ্চলে পারদের মাত্রা ৩৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। এই তাপমাত্রা আরো বাড়ার আশংকা রয়েছে। এ বছর রেকর্ড পরিমাণ গরম পড়বে, খরার কবলে পড়বে দেশের বিরাট অংশ বিশেষত: উত্তর-পশ্চিম অঞ্চল এমন পূর্বাভাস আবহাওয়া অধিদপ্তরে এ বছরের প্রথম প্রান্তিকের পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছিল। এখন সেটাই প্রত্যক্ষ করা যাচ্ছে। রাজশাহীতে গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ২৫ ডিগ্রী। এপ্রিল ও মে মাসে ক’টি তাপপ্রবাহ বয়ে যাবে এমন সতর্ক বার্তাও রয়েছে। আছে সেই সাথে ঝড় শিলা বৃষ্টির সম্ভাবনার সতর্ক বার্তা রয়েছে। বজ্রপাত বেড়ে যাওযার কথাও ওই বার্তায় বলা হয়েছে। এতে বোঝা যায় প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কবলে পড়ে সমূহ ক্ষতির শংকা রয়েছে।
রাজশাহীসহ দেশের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চল এমনিতে খরা প্রবন এলাকা। এই অঞ্চলের নদীগুলো শীতের পর থেকেই শুষ্ক হতে থাকে এবং মার্চ এপ্রিলে তা চরম পর্যায়ে পৌছে যায়। এতে পানির সংকট দেখা দেয়। খরাতে পরিস্থিতি অসহনীয় পর্যায়ে ওঠে। এবারও তেমন লক্ষণ ইতোমধ্যে দৃশ্যমান। নদীতে পানি নেই। হস্তচালিত নলকূপে পানি উঠছে না। এর উপর তাপমাত্রা বাড়তে থাকলে গরমের মাত্রা বাড়বে তাতে জনজীবনকে সম্পূর্ণ ভাবে বিপর্যস্ত করে তুলতে পারে। তাই পরিস্থিতি সামল দিতে আগাম প্রস্তুতি দরকার। সরকার অবশ্য যে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলার জন্যে দেশের সব জেলায় ব্যবস্থা রেখেছে। তবে সরকারের পাশাপাশি সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর দিক থেকে এ জন্যে প্রস্তুতি থাকতে হবে। আমরা আশা করি সবার সম্মিলিত উদ্যোগে খরা পরিস্থিতিতে যে কোন ক্ষতি সামলে নেয়া সম্ভব হবে।